“নগরী”

124 total views, 1 views today

নিলয় গোস্বামী:-

অন্তরে আরেক হরপ্পা নগরী গড়ে তুলছে
প্রাগৈতিহাসিক কামনা।

উড়ান ইচ্ছেরা সমূহ আলপনা দিচ্ছে
দৈব তীরের ফলায়।

ভালোবাসা শিউলি ফুলের গন্ধে মিশে
প্রিয়তার আঁচলে জড়িয়ে যায়।

পুরনো পুকুর খুঁড়ে উঁকি দেয় বিজয় নিশান,
দেখিয়ে দেয় একচোখা পায়েল আর একমুঠো ইচ্ছে।

অতিবৃদ্ধ আসবাব আর সজল দৃষ্টি।
প্রত্যাশিত মানুষের সন্ধান করে চলা অষ্টপ্রহর।

গত জন্মের প্রিয়তমা ;
আর এই জনমের প্রিয়তা।

আসবাবদের নিতান্তই নির্ভরতা।
নামান্তরের সুখটান…

ফিরে ফিরে কুড়িয়ে নেই তার শরীরী গন্ধ
আর ছুঁয়ে দেখি প্রশান্ত দৃষ্টি।

বুকের গহীনে ভালোবাসার রঙে আঁকা যে প্রতিকৃতি তা শুধু জন্ম ই বদলায়;
কিন্তু ক্ষয়ে যায় না।

অমলীন আচড় স্বপ্ন আঁকে
আগামীর সীমানায়।

তুমি ভুলে যেতে পারোনা;
এমন হলে জাতিস্মর অন্ধ,বধির হয়ে যাবে।

প্রিয়তা, পাঁজরের ধ্বনি তোমাকে ডাকছে;
গত সত্যকে বর্তমানের অস্তিত্বে লেপটে দিতে।
পূর্ণতা পেতে চাইছে অসীমের মাঝে।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •