এবারের মেলা অত্যন্ত সুশৃঙ্খল হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

22 total views, 1 views today

নিউজ ডেক্স:: অতীতের যে কোনো সময়ের চেয়ে এবারের ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা-২০১৮ (ডিআইটিএফ) সুশৃঙ্খল হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

রোববার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে মেলা প্রঙ্গণে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, এবারের মেলায় ১০০টি সিসি ক্যামেরা থাকছে। প্রয়োজনে আরও বাড়ানো হবে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সার্বক্ষণিক মনিটরিং করবে। দর্শনার্থীদের চলাচলের সুবিধার জন্য মেলার অভ্যন্তরের রাস্তাগুলো বেশি প্রশস্থ রাখা হয়েছে।

তিনি বলেন, এ বাণিজ্যমেলা শুধু ব্যবসাবাণিজ্য প্রসারের কাজ করে না। এটি একটি বিনোদনের কেন্দ্রেও পরিণত হয়েছে।

১ জানুয়ারি সোমবার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এ মেলার উদ্বোধন করবেন বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

মন্ত্রী বলেন, ২০১৮ সাল হল নির্বাচনের বছর। আগামী জাতীয় নির্বাচন হবে ক্ষমতাসীন সরকারের অধীনে। আর নির্বাচন পরিচালনা করবে নির্বাচন কমিশন। ইসি যে নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে পারে সেটি তারা প্রমাণ করেছে কুমিল্লা ও রংপুর সিটি নির্বাচন করে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তোফায়েল আহমেদ বলেন, পূর্বাচলে স্থায়ীভাবে বাণিজ্যমেলা হবে ২০২০ সাল থেকে।

বাণিজ্যমেলার প্রধান প্রবেশদ্বার করা হয়েছে পদ্মা সেতুর আদলে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এবারের ২৩তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় ভিন্ন আঙ্গিক আনার চেষ্টা করা হয়েছে।

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘মেলার দুই প্রান্তে সুন্দরবন ইকোপার্কের আকৃতি দেয়া হয়েছে। শিশুকর্নার করা হয়েছে। অর্কিডের বাগান করা হয়েছে।

ইপিবির ভাইস চেয়ারম্যান বিজয় ভট্টাচার্য সংবাদ সম্মেলনে জানান, মেলায় এবার স্টল ও প্যাভিলিয়নের সংখ্যা ৫৮৯টি। বড় প্যাভিলিয়ন ১১২, মিনি প্যাভিলিয়ন ৭৭ ও বিভিন্ন ক্যাটাগরির মোট স্টলের সংখ্যা ৪০০টি।

মেলায় থাকছে বঙ্গবন্ধু প্যাভিলিয়ন, ফ্ল্যাওয়ার গার্ডেন, ই-শপ, শিশুপার্ক, প্রাইমারি হেলথ সেন্টার, মা ও শিশু কেন্দ্র, রক্ত সংগ্রহ কেন্দ্রসহ ৩২ ধরনের অবকাঠামো। মেলায় বিদেশি অংশগ্রহণকারী হিসেবে ১৭ দেশের ৪৩টি প্রতিষ্ঠান অংশ নেবে।

সংবাদ সম্মেলনে বাণিজ্য সচিব শুভাশীষ বসু সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, মেলার স্টল বরাদ্দে কোনো অনিয়ম হয়নি। আর খাবারের স্টলগুলোর ব্যাপারে এবার আমরা সতর্ক। প্রতিটি খাবারের দাম নির্ধারণ করা থাকবে। এমনকি সালাদের দাম নিলেও সেটার মূল্য লেখা থাকতে হবে।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •