শেয়ারবাজারে পতনের পর ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা

36 total views, 1 views today

অর্থনীতি ডেক্স:: টানা তিন কার্যদিবস মূল্যসূচক ও লেনদেন কমার পর দেশের শেয়ারবাজারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা দিয়েছে। মঙ্গলবার প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সবকটি মূল্যসূচক বেড়েছে।

মূল্যসূচক বাড়লেও উভয় বাজারে লেনদেন হওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দরপতন হয়েছে। সেই সঙ্গে সিএসইতে লেনদেন আগের কার্যদিবসের তুলনায় কমেছে। তবে ডিএসইতে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ। কিন্তু বাজারটিতে এখনও লেনদেন ৩০০ কোটি টাকার ঘরে রয়েছে।

এদিন ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ৮ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ১৬৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দু’টি মূল্য সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ১৩ পয়েন্ট বেড়ে ২ হাজার ২৪৪ পয়েন্টে অবস্থা করছে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৫ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৩৭২ পয়েন্টে।

বাজারটিতে লেনদেন হওয়া ১০৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম বেড়েছে। বিপরীতে কমেছে ১৭৪টির, অপরিবর্তিত রয়েছে ৫৩টির। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৩৭১ কোটি ৪১ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৩৫৯ কোটি ৭১ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ১১ কোটি ৭০ লাখ টাকা।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে ইসলামী ব্যাংকের শেয়ার। কোম্পানিটির ১৬ কোটি ৬৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা সিটি ব্যাংকের ১৪ কোটি ৬৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ১১ কোটি ৩৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিং।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- স্কয়ার ফার্মা, শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, ব্র্যাক ব্যাংক, নাহি অ্যালুমিনিয়াম, পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স এবং ন্যাশনাল টিউবস।

অন্য শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্যসূচক সিএসসিএক্স ১৫ পয়েন্ট বেড়ে ১১ হাজার ৫৩৪ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ২৩ কোটি ৭১ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ২৩৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে ৭৮টির দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। অন্যদিকে দাম কমেছে ১১৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৫টির দাম।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •