কোম্পানীগঞ্জে পাথরচাপায় নিহত দুই লাশ মিললো নেত্রকোণায়

নিউজ ডেক্স:: কোম্পানীগঞ্জের কালাইরাগের আমির উদ্দিনের পাথরের গর্তে পাথরচাপায় নিহত হওয়া হবি ও হেলিমের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে নেত্রকোনায়। পাথরের গর্তে মাটিচাপায় নিহত হওয়ার পর পাথরখেকো সিন্ডিকেটের গডফাদাররা লাশ দুটি গুম করে ফেলেছিল। পরে পাঠিয়ে দিয়েছিল নেত্রকোনায়। পুলিশ খবর পেয়ে নেত্রকোনা থেকে লাশ দুটি উদ্ধার করে ময়না তদন্ত করেছে। এ ঘটনায় সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে তোলপাড় চলছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বিজয় দিবসের (১৬ ডিসেম্বর) দিন সন্ধ্যার একটু আগে কালাইরাগের আমির উদ্দিনের পাথরের গর্তে হঠাৎ পাথর ধ্বসে দুই শ্রমিক ঘটনাস্থলেই নিহত। এ ঘটনায় আরও কয়েকজন আহত হন। নিহতরা হলেন- নেত্রকোনার সদর থানার মাছুয়া গ্রামের হায়দার মিয়ার ছেলে হবি ও একই উপজেলার বর্ণি গ্রামের মৃত ইমান আলীর ছেলে হেলিম উদ্দিন। ঘটনার দিনই রাতেই লাশ দুটি গুম করে ফেলে স্থানীয়রা। তারা রাতের আধারে সিলেট থেকে এম্বুলেন্স নিয়ে লাশ দুটি পাঠিয়ে দেয় গ্রামের বাড়ি নেত্রকোনায়।

এদিকে, গভীর রাতে জানাজানি হওয়ার পর পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করে। পরদিন রবিবার তারা লাশ দুটি নেত্রকোনা থেকে উদ্ধার করে। পরে নেত্রকোনা পুলিশ লাশ দুটির ময়না তদন্ত সেখানকার জেলা মেডিকেলে করিয়েছে। পরে লাশ দুটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে কোম্পানীগঞ্জ থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে জানিয়েছেন কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি শফিকুর রহমান খান। তিনি বলেন, ‘বিজয় দিবসের দিন পুলিশ অনুষ্ঠানে ব্যস্ত থাকায় পাথরখেকো সিন্ডিকেটের সদস্যরা লাশ দুটি গোপনে পাঠিয়ে দিয়েছিল। এরপর পুলিশ লাশ দুটি উদ্ধার করে ময়না তদন্ত করেছে। নিহতদের স্বজনরা কোম্পানীগঞ্জে এসেছেন। তারা মামলার এজাহার দাখিলের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

এদিকে, এ ঘটনায় আহতদের গোপনে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •