গুজরাত ও হিমাচল প্রদেশে পদ্মের জয়জয়কার।

70 total views, 1 views today

নিজস্ব প্রতিনিধি-আবু নছর আব্দুল হাই ছিদ্দেকী  বছলা করিমগঞ্জ, (আসাম) :: সকাল থেকে সকলের নজর ছিল গুজরাত ও হিমাচল প্রদেশের ভোটের ফলের দিকে৷ ফল বেরনোর পর দেখা যায় দুই রাজ্যেই এগিয়ে বিজেপি৷ গুজরাতে আসন কমলেও ষষ্ঠবারের জন্য তারাই সরকার গড়তে চলেছে৷ হিমাচলে কংগ্রেসের সরকার ছিল৷ ভোটের ফল বলছে, এবার সেখানে তারা ধরাশায়ী৷ সরকার হবে বিজেপিরই৷ দুই রাজ্যে ভোটের ফল স্পষ্ট হতে হতেই দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতারা প্রতিক্রিয়া দিতে শুরু করেছেন৷

নিজের ঘরের রাজ্য গুজরাতে নরেন্দ্র মোদীর জনপ্রিয়তা অটুট রয়েছে, এতটুকু টাল খায়নি।স্বস্তিদায়ক সংখ্যাগরিষ্ঠতা’ নিয়েই গুজরাটে তারা সরকার গড়েছে।কংগ্রেস বিশেষত, তাদের নয়া সভাপতি রাহুল গাঁন্ধীর আক্রমণাত্মক প্রচার, বিরোধিতা সত্ত্বেও দল ক্ষমতা ‘দখলে রাখবে’ বলে জানাচ্ছেন তাঁরা।

প্রতিষ্ঠান-বিরোধিতা ‘কাজে আসেনি’, গুজরাত উন্নয়ন মডেলকেই বিজেপির পক্ষে অনুকূল হাওয়া ওঠার কারণ বলে ব্যাখ্যা করছেন বিজেপি নেতারা।এছাড়াও তাহারা বলেন গুজরাট ও হিমাচল প্রদেশের ফলাফলকে কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী সরকারের বিভিন্ন পলিসির প্রতি মানুষের সমর্থন বলে ব্যাখ্যা করেন। আরেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভরেকর বলেন, উন্নয়নই আজকের রাজনীতির মন্ত্র। সেজন্যই মানুষ মোদীজীর সঙ্গে রয়েছেন।

উল্লেখ্য গুজরাত বিধানসভায় মোট আসন ১৮২ আসন৷ সরকার গড়ার জন্য সেখানে ৯২টি আসন প্রয়োজন৷ অন্যদিকে হিমাচল প্রদেশে মোট আসন সংখ্যা ৬৮৷ সেখানে সরকার গড়ার জন্য প্রয়োজন ৩৫টি আসন৷গুজরাতে বিজেপি পেয়েছে ১০০টি আসন। কংগ্রেস ৮০টি আসন।২টি আসনে অন্যান্যরা৷হিমাচল প্রদেশে বিজেপি ৪০টি আসন পেয়েছে এবং কংগ্রেস ২৪টি আসন পেয়েছে ,৪টি আসনে রয়েছে অন্যান্যরা৷

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •