উইকেট নিয়ে সমালোচনা করে অনুতপ্ত তামিম

বিপিএলে মিরপুর শেরে বাংলার উইকেট এবং কিউরেটর নিয়ে সমালোচনা করায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স অধিনায়ক তামিম ইকবালকে শোকজ করেছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। আজ ছিল তার শুনানি। শুনানিতে স্বশরীরে উপস্থিত থাকার নির্দেশ থাকায় সকাল ১১টায়ই বিসিবি অফিসে হাজির হন তামিম।

এক ঘন্টারও বেশি সময় ধরে চলা বিসিবির ডিসিপ্লিনারি কমিটির শুনানি শেষে অবশ্য হাসিমুখেই বেরিয়েছেন তামিম। তিনি জানান, ‘সব ঠিক আছে। আমি আজ সন্ধ্যায় শারজায় টি-টেন ক্রিকেট খেলতে যাচ্ছি।’

সে তো ঠিক আছে? কিন্তু শুনানিতে আসলে কি সিদ্ধান্ত হয়েছে? তামিম ইকবালের ব্যাখ্যা কি ছিল? শুনানিতে নিজের দোষ স্বীকার করে নিয়েছেন জাতীয় দলের এই ওপেনার। তিনি মেনে নিয়েছেন, উইকেট নিয়ে এভাবে কথা না বললেও চলতো। তার ব্যাখ্যা বিসিবি স্বাভাবিকভাবেই নিয়েছে, মনে করছেন তামিম।

আগামী ২৭ ডিসেম্বর জাতীয় দলের ক্যাম্প শুরু হওয়ার কথা। ক্যাম্পে শুরু থেকেই যোগ দিতে পারবেন বলেও আশা করছেন তামিম।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত ২ ডিসেম্বর রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে বিপিএলের গ্রুপর্বের ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে উইকেট সম্পর্কে কিছু বলতে বলা হলে তামিম পিচের সমালোচনা করেন। সেই সংবাদ সম্মেলনে পিচ নিয়ে কথা বলেন জাতীয় দলের ওয়ানডে ফরমেটের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাও।
তবে তিনি কৌশলে পিচের বৈশিষ্ট্য নিয়ে কথা বলেন।

আর ওই ম্যাচের বিজয়ী দলের অধিনায়ক হয়েও তামিম একটু আবেগতাড়িত হয়ে বেশি সমালোচনা করেন পিচের। বিসিবির উচ্চ পর্যায়ের সূত্রে জানা গেছে, যেহেতু তামিম জাতীয় দলের ক্রিকেটার এবং বিসিবির মাসিক বেতনভুক্ত তথা চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটার; তাই চুক্তির শর্ত অনুযায়ী চুক্তিবদ্ধ কোনো ক্রিকেটার প্রকাশ্যে এমন কোনো কথা বলতে পারবেন না, যাতে বোর্ডের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয়।

এমনটা করলে সেটা শৃঙ্খলা বিরোধী কার্যক্রম বলেও পরিগণিত হবে। তাই তামিমের এই পিচ নিয়ে মন্তব্যকে শৃঙ্খলাবিরোধী কাজ বলেই গণ্য করেছে বিসিবি। তাই তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয় এবং স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে ব্যাখ্যা দিয়ে বলা হয়।

কমেন্ট
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •